পৌরসভা

পৌরসভা বা মিউনিসিপ্যালিটি বাংলাদেশের শহরাঞ্চলীয় স্বায়ত্তশাসন ব্যবস্থার একটি গুরুত্বপূর্ণ একক।বাংলাদেশের বৃহৎ শহরসমূহ সিটি কর্পোরেশন দ্বারা পরিচালিত হয়।জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ে যে শহর এবং শহর অঞ্চলগুলো রয়েছে তা পৌরসভা দ্বারা শাসিত এবং পরিচালিত হয়। বাংলাদেশে মোট পৌরসভার সংখ্যা ৩২৮টি [১]। ভারতে এ সংস্থাটি পুরসভা নামে প্রচলিত।

ইতিহাস

সর্বপ্রথম পৌর প্রতিষ্ঠান গঠনের লক্ষ্যে আইন পাস হয় ১৮৪২ সালে। ১৯৩২ সালে অবিভক্ত বাংলায় প্রবর্তিত বঙ্গীয় পৌরসভা আইন বা বেঙ্গল মিউনিসিপ্যাল অ্যাক্ট অনুসারে ও সেই আইনের ১৯৮০, ১৯৮২১৯৯২ সালের সংশোধনী অনুসারে পশ্চিমবঙ্গের পুরসভাগুলি পরিচালিত হত। ১৯৯৩ সালে পশ্চিমবঙ্গের পুরসভাগুলির পরিচালনার লক্ষ্যে পশ্চিমবঙ্গ পৌর আইন বা দ্য ওয়েস্ট বেঙ্গল মিউনিসিপ্যাল অ্যাক্ট চালু হয়। ১৯৯৪ ও ১৯৯৫ সালে এই আইনের সংশোধন সাধন করা হয়। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের পুরসভাগুলি এই আইন মোতাবেক প্রতিষ্ঠিত আছে।

ঢাকা পৌরসভা গঠিত হয় ১৮৬৪ সালে। স্বাধীন বাংলাদেশে পৌরসভা অধ্যাদেশ জারি হয় ১৯৭৭ সালে। বাংলাদেশের স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন, ২০০৯ অনুসারে বাংলাদেশের পৌরসভাগুলো প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত।

পৌরসভার তালিকা

আরো দেখুন

তথ্যসূত্র

১। স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের ওয়েবসাইট

করতোয়া নিম্ন নদী

করতোয়া নদী বা করতোয়া নিম্ন নদী বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের রংপুর, দিনাজপুর, বগুড়া ও গাইবান্ধা জেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য ১২২ কিলোমিটার, গড় প্রস্থ ১৪৪ মিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। বন্যাপ্রবণ নদীটির প্রবাহের প্রকৃতি বারোমাসি এবং নদীতে জোয়ারভাটার প্রভাব নেই। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড বা "পাউবো" কর্তৃক করতোয়া (নীলফামারী) নদীর প্রদত্ত পরিচিতি নম্বর উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের নদী নং ১৪।

কুমিল্লা জেলা

কুমিল্লা জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। এটি খাদি কাপড় ও রসমালাইয়ের জন্য বিখ্যাত।

খড়খড়িয়া-তিলাই নদী

খড়খড়িয়া নদী বা তিলাই নদী বাংলাদেশের উত্তরাংশের নীলফামারী ও দিনাজপুর জেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য ৭৫ কিলোমিটার, প্রস্থ ৩০ মিটার যা কোন্দলের নিকট পরিমাপকৃত এবং সেখানে গভীরতা ৬ মিটার। নদী অববাহিকার আয়তন ২৬৫ বর্গকিলোমিটার। সৈয়দপুর, পার্বতীপুর উপজেলা শহর এই নদীর পাড়েই অবস্থিত।

চট্টগ্রাম জেলা

চট্টগ্রাম জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত চট্টগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। পাহাড়, সমুদ্র, উপত্যকা, বন-বনানীর কারণে চট্টগ্রামের মতো ভৌগোলিক বৈচিত্র্য বাংলাদেশের আর কোন জেলার নেই।

চাঁদপুর জেলা

চাঁদপুর জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। পদ্মা, মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর মিলনস্থলে এ জেলা অবস্থিত।

নাজিরহাট পৌরসভা

নাজিরহাট বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত একটি পৌরসভা। হালদা নদীর পাড়ে অবস্থিত এই ছোট্ট শহরটি উত্তর চট্টগ্রামের অন্যতম প্রসিদ্ধ বাণিজ্যিক কেন্দ্র। ১৯৩০ সালে আসাম বেঙ্গল রেলওয়ে কর্তৃক নাজিরহাট ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রেল লাইনের সাথে সংযুক্ত হয়। আঞ্চলিক মহাসড়ক R160 (৯৮ কিলোমিটার দীর্ঘ) হাটহাজারী পৌরসভা থেকে নাজিরহাট পৌরসভা এবং ফটিকছড়ি পৌরসভার উপর দিয়ে খাগড়াছড়ি গিয়ে পৌঁছেছে। ২০১৪ সালের ২ জুন বাংলাদেশ সরকারের প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি (নিকার) এর ১০৯তম বৈঠকে এ পৌরসভার অনুমোদন দেওয়া হয়।

নীলফামারী জেলা

নীলফামারী জেলা বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের একটি জেলা (দ্বিতীয় স্তরের প্রশাসনিক ইউনিট)। এটি রংপুর বিভাগের (বাংলাদেশের আটটি বিভাগের একটি যা ২০০৮ সালে সপ্তম বিভাগ হিসাবে গঠিত হয়) আটটি জেলার একটি অন্যতম সীমান্তঘেষা জেলা। এ জেলার সদর বা রাজধানী নামও নীলফামারী। নীলফামারী জেলার উত্তর সীমান্তে ভারতের জলপাইগুড়ি জেলা এবং অন্য দিকে লালমনিরহাট, রংপুর, দিনাজপুর ও পঞ্চগড় জেলা অবস্থিত।

নীলফামারী জেলাকে নীলের দেশ বলা হয়। এই জেলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও ভূ-সংস্থান বেশ সমৃদ্ধ যা অন্যান্য জেলা থেকে এই জেলাকে কিছুটা হলেও আলাদা করেছে। জেলার উত্তর দিক উচু ও খরা পিরিত অঞ্চল, পূর্ব দিক তিস্তার বালুকাময় এলাকা, এই উচু ও বালুময় ভূমি ধীরে ধীরে দক্ষিণপশ্চিম দিকে উর্বর কৃষি জমিতে পরিণত হয়েছে। নীলফামারী অতীত ইতিহাসের অনেক সাক্ষী বহন করে। এ জেলায় সত্যপীরের গান, হাঁস খেলা, মাছ খেলাসহ অনেক উৎসব ও মেলার আয়োজন হয়।

নীলফামারী একটি কৃষি প্রধান জেলা। এ জেলার ৬৮.৫% মানুষ কৃষির উপর নির্ভরশীল। এখানকার প্রধান শিল্প বয়ন, চাল, বাশবেত প্রভৃতি। দারোয়ানী বস্ত্র কল এ জেলার সর্ববৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠান। এছাড়া উত্তরা ইপিজেড ও সৈয়দপুর বিসিক শিল্প নগরীর মত শিল্প পার্ক।

নোয়াখালী জেলা

নোয়াখালী জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত চট্টগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল।

পটিয়া পৌরসভা

পটিয়া পৌরসভা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার একটি পৌরসভা।

ফটিকছড়ি পৌরসভা

ফটিকছড়ি বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত একটি পৌরসভা। স্থানীয়ভাবে বিবিরহাট নামে পরিচিত এই ছোট্ট শহরটির অবস্থান ধুরুং নদীর পাড়ে। আঞ্চলিক মহাসড়ক R160 (৯৮ কিলোমিটার দীর্ঘ) হাটহাজারী পৌরসভা থেকে ফটিকছড়ি পৌরসভার উপর দিয়ে খাগড়াছড়ি গিয়ে পৌঁছেছে। এটি ২০১১ সালের ৩১ মার্চ বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক পৌরসভা হিসেবে ঘোষিত হয়। সেই সাথে ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে পৌর প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।

বাংলাদেশের পৌরসভা

পৌরসভা বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার ব্যবস্থার শহর এলাকার সরকার এর মধ্যে নিম্ন স্তরের প্রশাসনিক এলাকা। পৌরসভা আইন ২০০৯ অনুযায়ী বাংলাদেশের কোন এলাকা পৌরসভা ঘোষণা করা যেতে পারে যদি ঐ এলাকার তিন চতুর্থাংশ লোক অকৃষজ পেশায় নিয়োজিত থাকে, শতকরা ৩৩ ভাগ লোক অকৃষিজ পেশায় নিয়োজিত থাকে এবং জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ১৫শত জনের বেশি হয়। এবং ঐ এলাকার মোট জনসংখ্যা ৫০ হাজারের কম হবে না।

বাংলাদেশের শহরের তালিকা

এ নিবন্ধটি বাংলাদেশের শহরের তালিকা প্রদর্শন করে যা দক্ষিণ এশিয়ায় অবস্থিত। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো এবং স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এর মতে বাংলাদেশের ৫৩২ টি শহরাঞ্চল রয়েছে। বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ও প্রধান প্রধান শহরের নামের একটি তালিকা তৈরী করা হয়েছে এই নিবন্ধে।

মীরসরাই পৌরসভা

মীরসরাই পৌরসভা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই উপজেলার অন্তর্গত একটি পৌরসভা।

মৌলভীবাজার জেলা

মৌলভীবাজার জেলা (সিলেটী:) বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। মৌলভীবাজার পৌরসভাকে বাংলাদেশের অন্যতম সুন্দর পৌরসভা হিসাবে বিবেচনা করা হয় | প্রশাসনের উদ্যোগে এই পৌরসভার ব্যাপক কর্মকান্ড চলছে | বর্তমান পৌরসভাকে আরো আধুনিক ও মানসম্পন্ন নাগরিক সুবিধা দিতে কর্তৃপক্ষ ব্যাপক পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে |

সাতকানিয়া পৌরসভা

সাতকানিয়া পৌরসভা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার একটি পৌরসভা।

সিলেট বিভাগ

সিলেট বিভাগ (সিলেটি:) বাংলাদেশের উত্তর-পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত একটি প্রশাসনিক অঞ্চল, যা সিলেট, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ — এই চারটি জেলা নিয়ে গঠিত।

১৯৭১ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর পূর্ব থেকেই (অর্থাৎ পাকিস্তান আমল থেকেই) সাবেক সিলেট জেলা ছিল চট্টগ্রাম বিভাগের অন্তর্গত। পরবর্তীকালে সরকারের প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস কার্যক্রমের সূত্রে ১৯৯৫ খ্রিস্টাব্দের ১ আগস্ট চারটি জেলা নিয়ে বাংলাদেশের ষষ্ঠ বিভাগ সিলেট গঠিত হয়। এই বিভাগের মোট আয়তন ১২,৫৯৫.৯৫ বর্গ কিলোমিটার

সিলেট বিভাগ শিল্প শিল্পদ্রব্য (সার, সিমেন্ট, সিলেট পাল্পস এন্ড পেপার মিলস,ছাতক, বিদ্যুৎ), প্রাকৃতিক সম্পদ, খনিজ সম্পদ (গ্যাস, তেল, পাথর, চুনাপাথর) ইত্যাদিতে ভরপুর। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এ বিভাগের ভূমিকা অপরিসীম।

সীতাকুণ্ড পৌরসভা

সীতাকুণ্ড পৌরসভা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার একটি পৌরসভা।

হবিগঞ্জ জেলা

হবিগঞ্জ জেলা (সিলেটী:) বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। ১৯৮৪ সালে হবিগঞ্জকে জেলায় রূপান্তর করা হয়। এর আগে ১৮৭৪ সাল থেকে হবিগঞ্জ মহকুমা সিলেট জেলার অন্তর্ভুক্ত ছিল।

হাটহাজারী পৌরসভা

হাটহাজারী বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত একটি পৌরসভা।

অন্যান্য ভাষাসমূহ

This page is based on a Wikipedia article written by authors (here).
Text is available under the CC BY-SA 3.0 license; additional terms may apply.
Images, videos and audio are available under their respective licenses.