তিউনিসিয়া

তিউনিসিয়া (আরবি: تونس তূনিস্‌), সরকারী নাম তিউনিসীয় প্রজাতন্ত্র (الجمهرية التونسية আল্‌জুম্‌হুরিয়্যাত্তূনিসিয়্যা) আফ্রিকার উত্তর উপকূলে ভূমধ্যসাগরের তীরে অবস্থিত রাষ্ট্র। দেশটির মধ্য দিয়ে অ্যাটলাস পর্বতমালা চলে গেছে এবং দেশটিকে উত্তরের উর্বর সমভূমি ও দক্ষিণের শুষ্ক, উষ্ণ মরুময় অঞ্চলে ভাগ করেছে। ধারণা করা হয় যে, তিউনিস নামটি বার্বার জাতির ভাষা থেকে এসেছে, যার অর্থ "শৈলান্তরীপ" অথবা "রাত কাটাবার স্থান"। দেশটির পূর্ব উপকূলে অবস্থিত তিউনিস দেশের রাজধানী ও বৃহত্তম শহর। আয়তনের দিক থেকে তিউনিসিয়া অন্যান্য উত্তর আফ্রিকান রাষ্ট্রগুলির তুলনায় খর্বাকৃতির। তিউনিসিয়া আফ্রিকার উত্তরতম দেশ। এর উত্তরে ও পূর্বে রয়েছে ভূমধ্যসাগর। এর পশ্চিমে আলজেরিয়া এবং দক্ষিণ-পূর্বে লিবিয়া। উত্তর আফ্রিকার অধিকাংশ এলাকা জুড়ে অবস্থিত সাহারা মরুভূমি দক্ষিণ তিউনিসিয়া থেকে শুরু হয়েছে। দেশটির ৪৫% জায়গা সাহারা মরুভূমিতে পড়েছে। সামরিক কৌশলগত অবস্থানের কারণে উত্তর আফ্রিকা নিয়ন্ত্রণে অভিলাষী বহু সভ্যতার সাথে তিউনিসিয়ার সম্পর্ক স্থাপিত হয়েছে। এদের মধ্যে আছে ফিনিসীয় জাতি, কার্থেজীয় জাতি, রোমান জাতি, আরব জাতি এবং উসমানীয় তুর্কি জাতি।আরব বসন্তে জয় পেলেও এর নিরাপত্তা দুরবল।২০১৫ সালে এক হামলায় ৩৮ জন নিহত হয়।

স্থানাঙ্ক: ৩৪° উত্তর ১০° পূর্ব / ৩৪° উত্তর ১০° পূর্ব

তিউনিসীয় প্রজাতন্ত্র
الجمهورية التونسية
আল্‌জুম্‌হুরিয়্যাত্তূনিসিয়্যা
তিউনিসিয়ার জাতীয় পতাকা তিউনিসিয়ার Coat of Arms
পতাকা Coat of Arms
নীতিবাক্যحرية، ، عدالة، نظام
Hurriya, Nidham, 'Adala
"Liberty, Order, Justice"
" স্বাধীনতা, ধারা, সুবিচার "[১]
জাতীয় সঙ্গীত: হুমাত আল-হিমা
 তিউনিসিয়া-এর অবস্থান (dark blue) – Africa-এ (light blue & dark grey) – the African Union-এ (light blue)
 তিউনিসিয়া-এর অবস্থান (dark blue)

– Africa-এ (light blue & dark grey)
– the African Union-এ (light blue)

তিউনিসিয়ার অবস্থান
রাজধানী
এবং বৃহত্তম নগরী
তিউনিস
৩৬°৫০′ উত্তর ১০°৯′ পূর্ব / ৩৬.৮৩৩° উত্তর ১০.১৫০° পূর্ব
সরকারি ভাষা আরবি[২]
Spoken languages
জাতীয়তাসূচক বিশেষণ তিউনিসিয়ান
সরকার প্রজাতন্ত্র
 •  রাষ্ট্রপতি Moncef Marzouki
 •  প্রধানমন্ত্রী Mehdi Jomaa
স্বাধীনতা
 •  ফ্রান্স থেকে মার্চ ২০ ১৯৫৬ 
 •  মোট ১,৬৩,৬১০ কিমি (91st)
৬৩,১৭০ বর্গ মাইল
 •  জল/পানি (%) 5.0
জনসংখ্যা
 •  2014 আনুমানিক 10,982,754[৮] (79th)
 •  ঘনত্ব 63/কিমি (133rd)
১৬৩/বর্গ মাইল
মোট দেশজ উৎপাদন
(ক্রয়ক্ষমতা সমতা)
2017 আনুমানিক
 •  মোট $136.797 billion[৯]
 •  মাথা পিছু $12,065[৯]
মোট দেশজ উৎপাদন (নামমাত্র) 2017 আনুমানিক
 •  মোট $40.289 billion[৯]
 •  মাথা পিছু $3,553[৯]
জিনি সহগ (2010)36.1[১০]
মাধ্যম
মানব উন্নয়ন সূচক (2016)বৃদ্ধি 0.725[১১]
উচ্চ · 97th
মুদ্রা দিনার (TND)
সময় অঞ্চল CET (ইউটিসি+১)
 •  গ্রীষ্মকালীন (ডিএসটি) CEST (ইউটিসি+২)
কলিং কোড ২১৬
ইন্টারনেট টিএলডি

ইতিহাস

১৮৮১ সাল থেকে তিউনিসিয়া ফ্রান্সের একটি উপনিবেশ ছিল। ১৯৫৬ সালে এটি স্বাধীনতা লাভ করে। আধুনিক তিউনিসিয়ার স্থপতি হাবিব বুর্গিবা দেশটিকে স্বাধীনতায় নেতৃত্ব দেন এবং ৩০ বছর ধরে দেশটির রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেন। স্বাধীনতার পর তিউনিসিয়া উত্তর আফ্রিকার সবচেয়ে স্থিতিশীল রাষ্ট্রে পরিণত হয়। ইসলাম এখানকার রাষ্ট্রধর্ম; প্রায় সব তিউনিসীয় নাগরিক মুসলিম। কিন্তু সরকার ইসলামী মৌলবাদীদের রাজনৈতিক শক্তিতে পরিণত হওয়ার ক্ষেত্রে বাধার সৃষ্টি করেছে।

বর্তমানে তিউনিসিয়া পর্যটকদের একটি জনপ্রিয় গন্তব্যস্থল। এর রৌদ্রোজ্জ্বল আবহাওয়া, নয়নাভিরাম বেলাভূমি, বিচিত্র ভূ-প্রাকৃতিক দৃশ্যাবলী, সাহারার মরূদ্যান, এবং সুরক্ষিত প্রাচীন রোমান প্রত্নস্থলগুলি বিখ্যাত।

ভূগোল

তিউনিসিয়া উত্তর আফ্রিকা, আটলান্টিক মহাসাগরের নীল নদের বদ্বীপ এবং ভূমধ্য উপকূলের মধ্যে অবস্থিত।

জলবায়ু

এখানকার উত্তর অংশের জলবায়ু নাতিশীতোষ্ণ। শীতকালে হালকা বৃষ্টি এবং গরমকাল শুষ্ক।[১৩] দেশটির দক্ষিণে মরুভূমি।

তথ্যসূত্র

  1. "Tunisia Constitution, Article 4" (PDF)। ২৬ জানুয়ারি ২০১৪। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৪
  2. "Tunisian Constitution, Article 1" (PDF)। ২৬ জানুয়ারি ২০১৪। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৪
  3. Arabic, Tunisian Spoken. Ethnologue (19 February 1999). Retrieved on 5 September 2015.
  4. "Tamazight language"Encyclopædia Britannica
  5. "Nawaat – Interview avec l' Association Tunisienne de Culture Amazighe"Nawaat
  6. "An outline of the Shilha (Berber) vernacular of Douiret (Southern Tunisia)"
  7. "Tunisian Amazigh and the Fight for Recognition – Tunisialive"Tunisialive। ২০১১-১০-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।
  8. "National Institute of Statistics-Tunisia"। National Institute of Statistics-Tunisia। ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৪। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৪
  9. "Tunisia"। International Monetary Fund।
  10. "GINI index"। World Bank। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১৩
  11. "2016 Human Development Report" (PDF)। United Nations Development Programme। ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৪ এপ্রিল ২০১৬
  12. "Report on the Delegation of تونس."। Internet Corporation for Assigned Names and Numbers। ২০১০। ৩১ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ নভেম্বর ২০১০
  13. "Climate of Tunisia"। Bbc.co.uk। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ মে ২০১০

বহিঃসংযোগ

আফ্রিকা

আফ্রিকা আয়তন ও জনসংখ্যা উভয় বিচারে বিশ্বের ২য় বৃহত্তম মহাদেশ (এশিয়ার পরেই)। পার্শ্ববর্তী দ্বীপগুলোকে গণনায় ধরে মহাদেশটির আয়তন ৩০,২২১,৫৩২ বর্গ কিলোমিটার (১১,৬৬৮,৫৯৮ বর্গমাইল) । এটি বিশ্বের মোট ভূপৃষ্ঠতলের ৬% ও মোট স্থলপৃষ্ঠের ২০.৪% জুড়ে অবস্থিত। এ মহাদেশের ৬১টি রাষ্ট্র কিংবা সমমানের প্রশাসনিক অঞ্চলে ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ, অর্থাৎ বিশ্বের জনসংখ্যার ১৪% বসবাস করে। নাইজেরিয়া আফ্রিকার সর্বাধিক জনবহুল দেশ। আফ্রিকার প্রায় মাঝখান দিয়ে নিরক্ষরেখা

চলে গেছে। এর বেশির ভাগ অংশই ক্রান্তীয় অঞ্চলে অবস্থিত। মহাদেশটির উত্তরে ভূমধ্যসাগর, উত্তর-পূর্বে সুয়েজ খাল ও লোহিত সাগর, পূর্বে ভারত মহাসাগর, এবং পশ্চিমে আটলান্টিক মহাসাগর। উত্তর-পূর্ব কোনায় আফ্রিকা সিনাই উপদ্বীপের মাধ্যমে এশিয়া মহাদেশের সাথে সংযুক্ত।

আফ্রিকা একটি বিচিত্র মহাদেশ। এখানে রয়েছে নিবিড় সবুজ অরণ্য, বিস্তীর্ণ তৃণভূমি, জনমানবহীন মরুভূমি, সুউচ্চ পর্বত এবং খরস্রোতা নদী। এখানে বহু বিচিত্র জাতির লোকের বাস, যারা শত শত ভাষায় কথা বলে। আফ্রিকার গ্রামাঞ্চলে জীবন শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে একই রয়ে গেছে, অন্যদিকে অনেক শহরে লেগেছে আধুনিকতার ছোঁয়া।

আরবি ভাষা

আরবি ভাষা (العَرَبِيَّة, আল্-ʿআরবিয়্যাহ্ বা عَرَبِيّ ʻআরবিয়্য্) সেমিটীয় ভাষা পরিবারের জীবন্ত সদস্যগুলির মধ্যে বৃহত্তম। এটি একটি কেন্দ্রীয় সেমিটীয় ভাষা এবং হিব্রু ও আরামীয় ভাষার সাথে এ ভাষার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আছে। আধুনিক আরবিকে একটি "ম্যাক্রোভাষা" আখ্যা দেয়া হয়; এর ২৭ রকমের উপভাষা ISO 639-3-তে স্বীকৃত।

সমগ্র আরব বিশ্ব জুড়ে এই উপভাষাগুলি প্রচলিত এবং আধুনিক আদর্শ আরবি ইসলামী বিশ্বের সর্বত্র পড়া ও লেখা হয়। আধুনিক আদর্শ আরবি চিরায়ত আরবি থেকে উদ্ভূত। মধ্যযুগে আরবি গণিত, বিজ্ঞান ও দর্শনের প্রধান বাহক ভাষা ছিল। বিশ্বের বহু ভাষা আরবি থেকে শব্দ ধার করেছে।

আলজেরিয়া

আলজেরিয়া উত্তর-পশ্চিম আফ্রিকায় ভূমধ্যসাগরের তীরে অবস্থিত রাষ্ট্র। আলজেরিয়া আফ্রিকা মহাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম রাষ্ট্র (সুদানের পরেই)। দেশটির নয়-দশমাংশ জুড়ে সাহারা মরুভূমি অবস্থিত। ভূমধ্যসাগরের তীরে উপকূলীয় সমভূমি রয়েছে। আলজেরিয়ার প্রায় সব মানুষ দেশটির উত্তরাঞ্চলে উপকূলের কাছে বাস করে। ভূমধ্যসাগরের তীরে অবস্থিত আলজিয়ার্স দেশটির বৃহত্তম শহর ও রাজধানী। আলজেরিয়ার আরবি নাম আলজাজাইর (অর্থাৎ দ্বীপসমূহ); নামটি রাজধানীর তীর সংলগ্ন দ্বীপগুলিকে নির্দেশ করছে।

আলজেরিয়ার বেশির ভাগ লোক আরব, বার্বার কিংবা এই দুইয়ের মিশ্রণ। বার্বারেরা প্রথম উত্তর-পশ্চিম আফ্রিকায় বসতি স্থাপন করে। ৭ম শতকের শেষভাগে আরব মুসলিমেরা উত্তর আফ্রিকা জয় করে এবং ইসলাম ও আরবি ভাষার প্রচলন করে। বর্তমানে আলজেরিয়ার প্রায় সবাই মুসলিম ও আরবিভাষী। সংখ্যালঘু বার্বারেরা ইসলাম গ্রহণ করলেও নিজ ভাষা ও রীতিনীতি বিসর্জন দেয় নি। আলজেরিয়াতে ফরাসি ভাষাও বহুল প্রচলিত।

আলজেরিয়া ১৯শ শতকের মাঝামাঝি থেকে ১৯৬২ সালে ইতিহাসের অন্যতম রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভের আগ পর্যন্ত ফ্রান্সের উপনিবেশ ছিল। আট বছর ধরে সংঘটিত স্বাধীনতা যুদ্ধে দেশটির অশেষ ক্ষতিসাধন হয়, এবং এখান থেকে বহু ইউরোপীয় চলে যায়।

স্বাধীনতার সময়ে আলজেরিয়ার অর্থনীতি ছিল অণুন্নত ও কৃষিনির্ভর, তবে সরকার শীঘ্রই এটি আধুনিকীকরণের উদ্যোগ নেন। বর্তমানে আলজেরিয়া আফ্রিকার ধনী দেশগুলির একটি, এবং এর অন্যতম কারণ পেট্রোলিয়ামের রপ্তানি। ১৯৯০-এর দশকের শুরুতে সামরিক বাহিনী ও ইসলামী মৌলবাদীদের মধ্যে সংঘর্ষ দেশটিকে গৃহযুদ্ধে ঠেলে দেয়। তবে সরকারী উদ্যোগের ফলে ২১শ শতকের শুরুতে এই যুদ্ধ অনেকাংশেই দমন সম্ভব হয়েছে।

আলী মালোল

আলী মালোল (আরবি:علي معلول; জন্ম: ১ জানুয়ারি ১৯৯০) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি মিশরীয় ক্লাব আল আহলি এসসি এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

আহমেদ খলিল

আহমেদ খলিল (জন্ম: ২১ ডিসেম্বর ১৯৯৪) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি তিউনিসিয়ার ক্লাব ক্লাব আফ্রিকাইন এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

ইয়াসিন মেরিয়াহ

ইয়াসিন মেরিয়াহ হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি তিউনিসিয়ার ক্লাব সিএস স্ফাক্সিয়েন এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

উত্তর আফ্রিকা

উত্তর আফ্রিকা (ইংরেজি: North Africa বা Northern Africa) আফ্রিকা মহাদেশের উত্তরতম অঞ্চল। এটি সাহারা মরুভূমির মাধ্যমে সাহারা-নিম্ন আফ্রিকা হতে আলাদা। ভূ-রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে গৃহীত জাতিসংঘের সংজ্ঞানুযায়ী নিচের সাতটি দেশ ও অঞ্চল উত্তর আফ্রিকা গঠন করেছে:

আলজেরিয়া

তিউনিসিয়া

মরক্কো

মিশর

লিবিয়া

সুদান* পশ্চিম সাহারা একটি বিতর্কিত অঞ্চল। এটি মূলত মরক্কোর অধীনে অবস্থিত হলেও একটি গোষ্ঠী অঞ্চলটির স্বাধীনতার জন্য লড়াই করে যাচ্ছে।

মরক্কোর ভূমধ্যসাগরীয় তীরে কিছু স্পেনীয় শহর তথা ছিটমহল আছে। এগুলি "প্লাসাস দে সোবেরানা" নামে পরিচিত। অনেক সময় মোরিতানিয়াকেও উত্তর আফ্রিকার অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

মাগরেব অঞ্চলটি আলজেরিয়া, মরক্কো, তিউনিসিয়া এবং লিবিয়া নিয়ে গঠিত। অনেক সময় উত্তর আফ্রিকার দেশগুলিকে মধ্যপ্রাচ্যের অংশ হিসেবে গণ্য করা হয়। মিশরের সিনাই উপদ্বীপ এশিয়া মহাদেশে পড়েছে বলে মিশরকে একটি আন্তঃমহাদেশীয় রাষ্ট্র হিসেবে গণ্য করা হয়।

এলিঁ স্কিরি

এলিঁ স্কিরি (জন্ম: ১০ মে ১৯৯৫) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি লীগ ১ ক্লাব মন্তপিলিয়ের এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

গাইলান শালালি

গাইলান শালালি (আরবি: غيلان الشعلالي; জন্ম: ২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৪) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি তিউনিসিয়ার ক্লাব ইএস তিউনিস এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

তিউনিসিয়ার ভাষা

আরবি ভাষা তিউনিসিয়ার সরকারি ভাষা। এই ভাষাতে তিউনিসিয়ার প্রায় ৯৮% লোক কথা বলে। এছাড়াও কিছু বার্বার ভাষাতে অনির্ণীত সংখ্যক কিছু লোক কথা বলে। বেশ কয়েক হাজার লোক ফরাসি ভাষাতে কথা বলে। আন্তর্জাতিক কাজকর্মে ফরাসি ভাষা ব্যবহার করা হয়।

দিলান ব্রোন

দিলান ব্রোন (জন্ম: ১৯ জুন ১৯৯৫) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি বেলজীয় প্রো লীগ ক্লাব কেএএ খেন্ত এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন। তিনি মূলত একজন সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার। তিনি ফরাসির নিম্ন স্তরের লীগে এএস কানের হয়ে খেলেছেন।

ফাখরেদ্দিন বিন ইউসেফ

ফাখরেদ্দিন বিন ইউসেফ (আরবি: فخر الدين بن يوسف‎‎; জন্ম: ২৩ জুন ১৯৯১) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি সৌদি পেশাদার লীগ ক্লাব আল-ইত্তিফাক এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন আক্রমণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

ফারুক বিন মুস্তফা

ফারুক বিন মুস্তফা (জন্ম: ১ জুলাই ১৯৮৯) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি সৌদি পেশাদার লীগ ক্লাব আল-শাবাব এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন গোলরক্ষক হিসেবে খেলেন।

ফেরজানি সাসি

ফেরজানি সাসি (জন্ম: ১৮ মার্চ ১৯৯২) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি সৌদি পেশাদার লীগ ক্লাব আল নাসর এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

মালিকি

ইমাম মালিকের অনুগামীদের মালিকি বলা হয়। মুলত উত্তর ও পশ্চিম আফ্রিকায় এই মাযহাবের মানুষদের দেখা যায়। এই মাযহাবের মধ্যে বিভিন্ন উপজাতীয় মানুষ (যেমন নোমাড) দেখা যায়। এই মতালম্বীরা মুলত সুন্নি সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষ। লিবিয়া, নাইজার, আলজেরিয়া, তিউনিসিয়া, মরক্কো, পশ্চিম সাহারা, চাদ ইত্যাদি দেশের অধিকাংশ মানুষ এই মতালম্বী।

মোহাম্মদ আমীন বিন আমর

মোহাম্মদ আমীন বিন আমর (জন্ম: ৩ মে ১৯৯২) হলেন তিউনিসিয়ার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি তিউনিসিয়ার ক্লাব এতোয়েল দু সাহেল এবং তিউনিসিয়া জাতীয় দলের হয়ে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

লিবিয়া

লিবিয়া (আরবি: ليبيا‎‎; দাওলাত লিবীয় আরবি: دولة ليبيا‎‎) উত্তর আফ্রিকাতে ভূমধ্যসাগরের দক্ষিণ তীরে অবস্থিত একটি রাষ্ট্র। লিবিয়ার উত্তরে ভূমধ্যসাগর, পূর্বে মিশর, দক্ষিণ-পূর্বে সুদান, দক্ষিণে চাদ ও নাইজার, এবং পশ্চিমে আলজেরিয়া ও তিউনিসিয়া অবস্থিত। ভূমধ্যসাগরের তীরে অবস্থিত ত্রিপোলি শহর লিবিয়ার বৃহত্তম শহর ও রাজধানী।

লিবিয়া আফ্রিকার বৃহত্তম রাষ্ট্রগুলির একটি। আকারে বিশাল হলেও লিবিয়াতে জনবসতি খুবই লঘু। দেশের বেশিরভাগ অংশ জুড়ে রয়েছে সাহারা মরুভূমি। লিবিয়ার প্রায় সমস্ত লোক উপকূলবর্তী অঞ্চলে বাস করে। লিবিয়ার তিনটি প্রধান অঞ্চল হল ত্রিপোলিতানিয়া, ফেজ, ও সিরেনাইকা।

বার্বার জাতির লোকেরা লিবিয়ার আদিবাসী। খ্রিস্টীয় ৭ম শতকে এখানে আরবদের আগমন ঘটে। বর্তমান লিবিয়ার অধিবাসীরা এই দুই জাতের লোকের মিশ্রণ। স্বল্পসংখ্যক বার্বার এখনও দেশের দক্ষিণ প্রান্তসীমায় বাস করে। লিবিয়ার সংখ্যাগুরু লোক ইসলাম ধর্মাবলম্বী। ইসলাম এখানকার রাষ্ট্রধর্ম এবং আরবি ভাষা সরকারি ভাষা।

১৯৫০-এর দশকে খনিজ তেল আবিষ্কারের আগে লিবিয়া একটি দরিদ্র রাষ্ট্র ছিল। পেট্রোলিয়ামের বিরাট মজুদ আবিষ্কারের পর থেকে লিবিয়া আফ্রিকার সবচেয়ে ধনী দেশগুলির একটি। তবে এখনও এখানকার অনেক লোক এখনও খামার ও পশুচারণের কাজে নিয়োজিত, যদিও ভাল খামারভূমির পরিমাণ অত্যন্ত কম।

লিবিয়াতে প্রাচীনকালে ফিনিসীয়, রোমান ও আরবেরা বসতি স্থাপন করেছিল। ২০শ শতকের প্রথমভাগে ইতালীয়রা দেশটিকে একটি উপনিবেশে পরিণত করে। ১৯৫১ সালে দেশটি একটি স্বাধীন রাজতন্ত্রে পরিণত হয় এবং ১৯৬৯ সালে তরুণ সামরিক অফিসার মুয়াম্মার আল-গাদ্দাফি ক্ষমতা দখল করেন। গাদ্দাফি তাঁর সমাজতন্ত্র ও আরব জাতীয়তাবাদের তত্ত্ব অনুযায়ী এক নতুন লিবিয়া গঠন করেন। তিনি লিবিয়াকে একটি সমাজতান্ত্রিক আরব গণপ্রজাতন্ত্র আখ্যা দেন। তবে লিবিয়ার বাইরের লোকদের কাছে দেশটি একটি সামরিক একনায়কতন্ত্র হিসেবেই বেশি পরিচিত।

২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ গ্রুপ জি

২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ এর গ্রুপ জি পর্বের খেলা ২০১৮ সালের ১৮ থেকে ২৮ জুন অনুষ্ঠিত হবে। এই গ্রুপে অংশগ্রহণ করছে বেলজিয়াম, পানামা, তিউনিসিয়া এবং ইংল্যান্ড। পয়েন্ট তালিকায় প্রথম দুই দল পরবর্তী ১৬ দলের পর্বে অগ্রসর হবে।

তিউনিসিয়ার বিভিন্ন বিষয়ের নিবন্ধসমূহ

অন্যান্য ভাষাসমূহ

This page is based on a Wikipedia article written by authors (here).
Text is available under the CC BY-SA 3.0 license; additional terms may apply.
Images, videos and audio are available under their respective licenses.