উপহ্রদ

লম্বাকৃৃতি উপহ্রদটি ভূমধ্যসাগর থেকে পাথুড়ে পাহাড়ি উচ্চভূমি দ্বারা পৃৃথকীকৃৃৃত৷

Kara-Bogaz Gol from space, September 1995
তুর্কিমেনিস্তান রাষ্ট্রের কারাবোগাজ কোল উপহ্রদ
Venice Lagoon December 9 2001
ইতালির ভেনিস উপহ্রদ

উপহ্রদ হলো স্থলভাগের অভ্যন্তরস্থ একপ্রকার জলাধার বা হ্রদ যা কোনো বৃহৎ জলভূমির থেকে প্রবালপ্রাচীর বা কোনো প্রাচীর দ্বীপের মাধ্যমে বিচ্ছিন্ন বা পৃথকীকৃত৷ বিভিন্নক্ষেত্রে প্রাচীর দ্বীপের সাথেনুড়ি মিশ্রিত বালুকাময়ভূমি বা কর্কশ পাথুরে উপকুলভূমির উপস্থিতি ঔ দেখতে পাওয়া যায়৷ উপকুলীয় উপহ্রদের সাথে নদীমোহনা ও খাঁড়ির উপরিপাতন ও লক্ষ্য করা যায়৷ বিশ্বের বিভিন্ন উপকুলী ভূভাগে উপহ্রদের উপস্থিতি একটি সাধারন উপকুলীয় বৈশিষ্ট৷

BalosLagoonCreta
ক্রিটের বালোস উপকুলীয় উপহ্রদ

সংজ্ঞা

উপহ্রদগুলি অগভীর ও মূলত লম্বাকৃতির জলাধার হয়ে থাকে, যা বড়োকোনো জলভুমির খণ্ডের থেকে অনতিদীর্ঘ উন্মুক্ত বালুকাময় তটভূমি বা প্রবালপ্রাচীর অথবা এরূপ কোনো ভূমিরূপ দ্বারা বিচ্ছিন্ন থাকে৷ অনেকে স্বাদুজলের উপস্থিতিও উপহ্রদের সংজ্ঞার অন্তর্ভুক্ত করতে চান, যদি বিপরীতপক্ষে অনেকে উপহ্রদে লবনাক্ততার কথা উল্লেখ করে থাকেন৷ উপহ্রদ ও নদীমোহনা উভয়ের সংজ্ঞার সূক্ষ্মতায় অভিজ্ঞদের একাধিক মতবিরোধ রয়েছে৷ জুনিয়র রিচার্ড এ. ডেভিস উপহ্রদে স্বাদুজলের উপস্থিতিকে প্রাধান্য দেন এবং কোনো উপসাগরে সামান্যতম স্বাদুজলের উপস্থিতিকে তিনি মোহনা বলে উল্লেখ করার পরামর্শ দেন৷ তিনি আরো দাবী তোলেন যে উপহ্রদ ও মোহনার বিজ্ঞানের ভাষাতে প্রায়শই না বুঝে প্রয়োগ করা হয়ে থাকে৷[১] টিমোথি এম. কুস্কির মতে উপহ্রদ সাধারণত তটভূমির সমান্তরালে অবস্থান করে আবার নদী মোহনা হলো একটি নিমজ্জিত নদী উপত্যকা যার অভিমুখ তটভূমির সাথে লম্বালম্বিভাবে থাকে৷[১][২][৩][৪][৫] প্রবালপ্রাচীর বাস্তুতন্ত্রের ক্ষেত্রে উপহ্রদ ও বলয়াকৃৃতি প্রবালদ্বীপ সমার্থক৷[৬] উপকুলীয় উপহ্রদগুলি ভূ-অভ্যন্তরস্থ জলভূমির তালিকাভুক্ত৷[৭][৮]

প্রবালপ্রাচীর বেষ্টিত উপহ্রদ

Atafutrim
প্রশান্ত মহাসাগরের টোকেলাউতে অবস্থিত প্রবালপ্রাচীর বেষ্টিত আতাফু উপহ্রদের উপগ্রহ থেকে তোলা ছবি

যখন প্রবালপ্রাচীর সমুদ্রতল থেকে উপরে উত্থিত হতে থাকে এবং প্রাচীরবেষ্টিত দ্বীপটি কোনো কারণে নিমজ্জিত বা জলমগ্ন হয়ে পড়ে তখন ঐ দ্বীপ অঞ্চলে প্রবালপ্রাচীর বেষ্টিত উপহ্রদগুলির সৃৃষ্টি হয়৷ প্রবালপ্রাচীর বেষ্টিত উপহ্রদগুলির তীরে প্রাকৃৃতির কারণে নুড়ি ও বালি সঞ্চিত হয়ে বেলাশৈল সৃৃষ্টি হয়৷ এই উপহ্রদগুলির তটের উচ্চতা সমুদ্রপৃৃষ্ঠের থেকে খুববেশি না হলেও গভীরতা ২০ মিটার বা তার বেশি হয়ে থাকে৷

উপকূলীয় উপহ্রদ

Chialka lake
ওড়িশা উপকুলবর্তী চিল্কা হ্রদ, যা পূর্ব ভারতের একটি উপকুলবর্তী উপহ্রদ
Hiddensee (2011-05-21)
জার্মানিতে স্ট্রালসান্ডের নিকট হিডেনসি দ্বীপের উপহ্রদ৷ পশ্চিম পোমেরেনিয়া উপহ্রদ অঞ্চল জাতীয় উদ্যানে অনুরূপ একাধিক উপকুলীয় উপহ্রদ দেখতে পাওয়া যায়
India - Pulicat Lake - 023 - lake landscape
অন্ধ্রপ্রদেশতামিলনাড়ুর অন্তর্বর্তী পুলিকট হ্রদ, যা দক্ষিণ ভারতের একটি উপকুলীয় উপহ্রদ

যেসমস্ত উপকুল অঞ্চলের ঢাল খুব কম, প্রাচীর দ্বীপ বা প্রবালপ্রাচীর স্রোতের প্রতিকুলে সৃষ্ট এবং সমুদ্রতলের উচ্চতা ভুতলের তুলনায় অধিক বা জলমগ্ন সেই সকল অঞ্চল উপকুলীয় উপহ্রদ সৃৃষ্টির অনুকুল৷ পাহাড়ি উপকুল অঞ্চলে বা ঢেউয়ের উচ্চতা ৪ মিটার (১৩ ফু) হলে সেইসকল অঞ্চলে উপকুলীয় হ্রদ সাধারণত সৃৃষ্টি হতে পারে না৷ ঢালু ভূমিতে সৃৃষ্টি হওয়ার জন্য উপহ্রদগুলি অগভীর হয়৷ উপকুলবর্তী হওয়ায় এগুলি বিশ্ব উষ্ণায়ন বা সমুদ্রতলের বৃৃদ্ধির ওপর নির্ভরশীল৷ জলস্তর হ্রাসে ফলে উপহ্রদগুলি জলহীন বা জলস্তর বৃদ্ধির ফলে প্রাচীর দ্বীপের নাশ ও ফলস্বরূপ উপহ্রদের অবলুপ্তি ঘটে যাওয়া খুবই স্বাভাবিক৷ ভৌগোলিকদের মতে, উপকুলীয় উপহ্রদগুলি প্রবীন, পরিবর্তনশীল ও স্বল্পস্থায়ী হয়৷ পৃথিবীর সমগ্র উপকুলভাগের প্রায় ১৫ শতাংশই এইধরনের উপহ্রদ দ্বারা সৃষ্ট, এছাড়া ভারতেই রয়েছে ৩৪টি বৃহৎ এবং অন্যান্য অনেক ক্ষুদ্রাকৃতি উপহ্রদ৷[৯]

উপকুলীয় উপহ্রদ মুলত সমুদ্র বা সমাসাগরের সাথে প্রাচীরদ্বীপমধ্যস্থ খাঁড়ির মাধ্যমে যুক্ত থাকে৷ খাঁড়ির সংখ্যা, আকৃৃতি, অধঃক্ষেপন, বাষ্পায়ন এবং স্বাদুজলের ধারার উপস্থিতি কোনো উপহ্রদের বৈশিষ্ট্যকে প্রভাবিত করে৷ যেসস্ত উপহ্রদে স্বল্প সমুদ্র সংসুতি, কম বা শূণ্য সাদুজলের ধারার উপস্থিতি সহ উচ্চ বাষ্পায়ন হার দেখা যায় সেখানে জলের প্রকৃতি লবনাক্ত হয়৷ সমুদ্র সংযুতিহীন ও পর্যাপ্ত স্বাদুজলের উৎস থাকলে উপহ্রদটি মিষ্টিজলের উপহ্রদ হয়৷ আবার ওয়াডেন সাগরের ক্ষেত্রে একাধিক খাঁড়িসহ একাধিক স্বাদুজলের উৎস উপহ্রদগুলির মিশ্র প্রকৃৃতির ও তরঙ্গপ্রভাবিত হওয়ার জন্য দায়ী৷

নদীমুখ উপহ্রদ

The eyes of Atacama
চিলির সালার দি আটাকামা উপহ্রদ[১০]

যেসকল উপকুলবর্তী অঞ্চলে নদী উপকুলীয় পরিবেশে উপরিপাতিত হয় ও উপকুলভুমি খুব চওড়া, কম ঢালযুক্ত ও সমুদ্রপৃৃষ্ঠের উচ্চতার প্রায় সমান হয় সেক্ষেত্রে নদীমোহনা অঞ্চলে এইধরনের উপহ্রদ সৃৃষ্টি হয়৷ এগুলি মুলত বালি ও নুঁড়ি মিশ্রিত উপকুলভাগের ওপর সৃৃষ্ট৷[১১] এইরকম উপহ্রদ সর্বাধিক দেখতে পাওয়া যায় নিউজিল্যান্ডের দক্ষিণ উপকুলভাগে৷ নিউজিল্যান্ডের অধিবাসী মাওরিরা স্থানীয় ভাষাতে এইধরনের উপহ্রদগুলিকে হাপুয়া বলে থাকে৷

তথ্যসূত্র

  1. Davis, Richard A., Jr. (১৯৯৪)। The Evolving Coast। New York: Scientific American Library। পৃষ্ঠা 101, 107। আইএসবিএন 9780716750420।
  2. *Allaby, Michael, সম্পাদক (১৯৯০)। Oxford Dictionary of Earth Sciences। Oxford: Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-921194-4।
  3. Kusky, Timothy, সম্পাদক (২০০৫)। Encyclopedia of Earth Sciences। New York: Facts on File। পৃষ্ঠা 245। আইএসবিএন 0-8160-4973-4।
  4. Nybakken, James W., সম্পাদক (২০০৩)। Interdisciplinary Encyclopedia of Marine Sciences। 2 G-O। Danbury, Connecticut: Grolier Academic Reference। পৃষ্ঠা 189–90। আইএসবিএন 0-7172-5946-3।
  5. Reid, George K. (১৯৬১)। Ecology of Inland Waters and Estuaries। New York: Van Nostrand Reinhold Company। পৃষ্ঠা 74।
  6. Aronson, R. B. (১৯৯৩)। "Hurricane effects on backreef echinoderms of the Caribbean"। Coral Reefs12 (3–4): 139–142। doi:10.1007/BF00334473
  7. Maurice L. Schwartz (২০০৫)। Encyclopedia of coastal science। Springer। পৃষ্ঠা 263। আইএসবিএন 978-1-4020-1903-6। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১২
  8. Kjerfve, Björn (১৯৯৪)। "Coastal Lagoons"। Coastal lagoon processes। Elsevier। পৃষ্ঠা 1–3। আইএসবিএন 978-0-444-88258-5।
  9. http://iomenvis.nic.in/index2.aspx?slid=758&sublinkid=119&langid=1&mid=1
  10. "The eyes of Atacama"www.eso.org। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৭
  11. Kirk, R.M. and Lauder, G.A (২০০০)। Significant coastal lagoon systems in the South Island, New Zealand: coastal processes and lagoon mouth closure। Department of Conservation।
অপারেশন ক্রস রোড

অপারেশন ক্রসরোডস ছিল ১৯৪৬ সালের মধ্যবর্তি সময়ে বিকিনি এটোলে ঘটা এক জোড়া পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা করার ঘটনা, যা যুক্তরাষ্ট্রে করেছিল। ১৯৪ সালের জুলাই মাসে ট্রিনিটির পরে এটি ছিল প্রথম পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা এবং ১৯৪৫ এর ৯ ই আগস্টের নাগাসাকির পরমাণু বোমা হামলার পর পরমাণু ডিভাইসের প্রথম বিস্ফোরণ। এর মূল উদ্দেশ্য ছিলো যুদ্ধজাহাজে পারমাণবিক অস্ত্রের প্রভাব পরীক্ষা করা।

ক্রসরোডসের পরীক্ষাগুলি মার্শাল দ্বীপে সংঘটিত বহু পারমাণবিক পরীক্ষার মধ্যে প্রথম ছিল। এটিই প্রথম পূর্ব ঘোষিত, প্রকাশ্যে এবং একটি বৃহত প্রেস কর্পসসহ আমন্ত্রিত শ্রোতা দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয়েছিল। অপারেশ্নগুলো যৌথ সেনা / নেভি টাস্ক ফোর্স ওয়ান পরিচালনা করেছিল এবং ম্যানহাটন প্রকল্পর পরিবর্তে নেতৃত্ত্বে ছিলেন ভাইস অ্যাডমিরাল উইলিয়াম এইচ পি ব্ল্যান্ডি, যদিও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় পারমাণবিক অস্ত্র বিকশিত ম্যানহাটন প্রকল্প দ্বারা। ৯৫ টি টার্গেট জাহাজের একটি বহর বিকিনি লাগুনে একত্রিত হয়েছিল এবং ফ্যাট ম্যান প্লুটোনিয়ামের পারমাণবিক অস্ত্রের দুটি বিস্ফোরণে নাগাসাকিয় ফেলে দেওয়া হয়েছিল, যার প্রতিটি ছিল ২৩ কিলোটন টিএনটি (৯৬ টিজে))।

প্রথম পরীক্ষা ছিল ‘এবেল’। ১৯৪6 সালের সিনেমা ‘গিল্ডা’-র রিতা হায়ওয়ার্থের চরিত্র অনুযায়ী বোমার নামকরণ করা হয়েছিল গিলদা এবং 1 জুলাই, ১৯৪৬ সালের ৫০৯তম বোম্বার্ডমেন্ট গ্রুপের ‘বি -২৯ সুপারফ্রেস্রেস’ এবং ‘ডেভের স্বপ্ন’ থেকে নিচে ফেলা হয়। লক্ষ্য বহরের ৫২০ ফুট (১৫৮ মিটার) উপরে এর বিস্ফোরণ ঘটে এবং প্রত্যাশিত পরিমাণের চেয়ে কম জাহাজের ক্ষতিসাধন হয় কারণ এটি তার লক্ষ্য বিন্দুটি ২,১৩০ ফুট (৬৪৯ মিটার) দূরে বিস্ফোরিত হয়েছিল।

দ্বিতীয় পরীক্ষা ছিল ‘বাকের’। বোমাটি ‘বিকিনির হেলেন’ নামে পরিচিত ছিল এবং ১৯৪৬ সালের ২৫ই জুলাই ৯০ ফুট (২৭ মিটার) পানির নীচে বোমাটির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। তেজস্ক্রিয় সমুদ্রের ফেনা ব্যাপক দূষণ ঘটিয়াছিলো। ‘চার্লি’ নামে তৃতীয় গভীর-জলের পরীক্ষাটি ১৯৪৭ সালের জন্য পরিকল্পনা করা হয়েছিল, তবে বাকের পরীক্ষার পরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেভি’র লক্ষ্য জাহাজগুলি পুনরায় নিয়ন্ত্রণের অক্ষমতার কারণে এটি বাতিল করা হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত, মাত্র নয় টি লক্ষ্যমাত্রার জাহাজগুলি ঝাঁকুনির পরিবর্তে স্ক্র্যাপ করতে সক্ষম হয়েছিল। ‘চার্লি’ পুনরায় নির্ধারণ করা হয়েছিল ‘অপারেশন উইগওয়াম’ হিসাবে, ১৯৫৫ সালে ক্যালিফোর্নিয়া উপকূলে একটি গভীর জলের শট ছিল।

বিকিনি-র আদিবাসীরা দ্বীপটি সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে রাজি হয়েছিল এবং বেশিরভাগ ‘রঞ্জেরিক অ্যাটলে’ চলে যাওয়ার সাথে সাথে তারা এলএসটি -৮৬১-এ উঠে যায়। বড় বড় থার্মোনক্লায়ার পরীক্ষাগুলোর তেজস্ক্রিয় দূষণের কারণে, ১৯৫০ সালে জীবিকা নির্বাহের জন্য চাষ করা এবং মাছ ধরার জন্য বিকিনিকে অযোগ্য ঘোষণা করে। বিকিনি ২০১৭ সালে বসতিহীন থেকে যায়, যদিও এটি মাঝে মাঝে খেলার ডুবুরীরা এখানে এসে ঘুরে যায়। পরিকল্পনাকারীরা রেডিয়েশনের অসুস্থতার বিরুদ্ধে অপারেশন ক্রসরোড পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের রক্ষা করার চেষ্টা করেছিল, তবে একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে অংশগ্রহণকারীদের আয়ু গড়ে তিন মাস কমেছে। ‘বেকার’ পরীক্ষার পারমাণবিক বিস্ফোরণে তাত্ক্ষণিক প্রথম ঘটনা হল সমস্ত লক্ষ্য-জাহাজের তেজস্ক্রিয় দূষণ, পারমাণবিক বিস্ফোরণ থেকে ঘনীভূত তেজস্ক্রিয় ফলআউট । পারমাণবিক শক্তি কমিশনের দীর্ঘমেয়াদী চেয়ারম্যান কেমিস্ট গ্লেন টি. সিবার্গ বাকারকে "বিশ্বের প্রথম পারমাণবিক বিপর্যয়" বলে অভিহিত করেছিলেন।

কাতার জাতীয় জাদুঘর

কাতার জাতীয় জাদুঘর কাতারের রাজধানী দোহায় অবস্থিত এটি জাতীয় জাদুঘর। কাতার জাতীয় জাদুঘর প্রতিস্থাপিত হয় এবং ২০১৬ সালে কাতার জাতীয় জাদুঘর একই স্থানে নির্মিত হয়েছে।

কাভানা

কাভানা নৌকার একটি আচ্ছাদিত আশ্রয়। ভেনিসের সাধারণ শহর এবং উপহ্রদ এ দেখা যায়।

কাভানা শব্দটি ধারনা করা হয় ইতালীয় শব্দ কাপান্না (capanna) থেকে এসেছে যার শাব্দিক অর্থ কুঁড়েঘর, প্রাচীনতম অঙ্কন শিল্প থেকে পাওয়া যায় এটা একটি কুঁড়েঘর বিশেষ আশ্রয়স্থান যা খড় দিয়ে ঢাকা (নির্মিত)। সময়ের সাথে সাথে এর পরিবর্তন এসেছে, ছোট নদী এর সাথে/পাশে এই ধরনের আশ্রয়স্থান এখন নির্মিত হয় ভবন বা প্রাসাদের সাথে সংযুক্ত সংগ্রহ ভান্ডারস্থল হিসাবে ব্যবহৃত হবার জন্যে।

গ্রেরীফ শার্ক

গ্রেরীফ হাঙর (বৈজ্ঞানিক নাম: Carcharhinus amblyrhynchos, ইংরেজি নাম: Grey reef shark) একটি রেকিয়াম হাঙরের একটা প্রজাতি এবং এরা কার্কারিনিডি পরিবারের

একটা হাঙর। ইন্দো প্যাসিফিক সাগরে যেসব হাঙর দেখা যায় তার ভেতর এরা খুবই সাধারণ। দক্ষিণ আফ্রিকার পশ্চিমে এবং ইস্টার দ্বীপে এদের খুব বেশি চোখে পড়ে। এই প্রজাতিটিকে প্রবালদ্বীপের আশেপাশে

অগভীর জলের মধ্যে প্রায়শই দেখা যায়। এরা ১.৯ মিটার (৬.২ ফুট) লম্বা হয়। এদের থেকে মানুষের কিছুটা বিপদের কারণআছে।

চিল্কা হ্রদ

চিল্কা হ্রদ(ওড়িয়া: ଚିଲିକା ହ୍ରଦ, প্রতিবর্ণী. চিলিকা হ্রদ) একটি ঈষৎলোনা জলের উপহ্রদ যা ভারতের পূর্ব উপকূলের ওড়িশা রাজ্যের পুরী, খুরদা ও গানজাম জেলায় বিস্তৃত। দিয়া নদীর তীরে, বঙ্গোপসাগরে এটি ১১০০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিস্তৃত। এটি ভারতের বৃহত্তম উপকূলীয় লেগুন (উপহ্রদ) এবং নিউ ক্যালিডোনিয়ার নিউ ক্যালিডোনিয়ার প্রবাল প্রাচীরের পরে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম উপকূলীয় লেগুন।

টোগো

টোগো (ফরাসি: Togo তোগো) পশ্চিম আফ্রিকার একটি প্রজাতন্ত্র। এর উত্তরে বুর্কিনা ফাসো, পূর্বে বেনিন, দক্ষিণে গিনি উপসাগর, এবং পশ্চিমে ঘানা। টোগো উত্তর-দক্ষিণে প্রায় ৫৫০ কিমি দীর্ঘ এবং পূর্ব-পশ্চিমে এর দৈর্ঘ্য ৪০ থেকে ১৩০ কিমি পর্যন্ত হতে পারে। দেশটির আয়তন ৫৬,৭৮৫ বর্গ কিমি। লোমে টোগোর রাজধানী ও বৃহত্তম শহর।

তারাওয়া

তারাওয়া পশ্চিম-মধ্য প্রশান্ত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র কিরিবাসের অন্তর্গত গিলবার্ট দ্বীপপুঞ্জের উত্তরভাগে অবস্থিত একটি প্রবালপ্রাচীরবেষ্টিত দ্বীপ বা অ্যাটল ও রাজধানী। দ্বীপটি অস্ট্রেলিয়ার ৪৫০০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত। এটি কিরিবাসের সবচেয়ে জনবহুল অ্যাটল দ্বীপ। তারাওয়ার ইংরেজি ভি অক্ষরের আকৃতিবিশিষ্ট ৩৫ কিলোমিটার দীর্ঘ প্রবালপ্রাচীরটি ৩০টিরও বেশি খণ্ডদ্বীপ নিয়ে গঠিত। এদের মধ্যে বাইরিকি, বোনরিকি, বেতিও ও বিকেনিবেউ প্রধান চারটি খণ্ডদ্বীপ। অন্যান্য খণ্ডদ্বীপগুলিতে যাবার জন্য নৌকা ব্যবহার করতে হয়। অ্যাটলটি একটি বাণিজ্যিক ও শিক্ষাকেন্দ্র। তারাওয়ার দক্ষিণ দিকের বেতিও, বাইরিকি ও বিকেনিবেউ খণ্ডদ্বীপগুলিতে বন্দর সুবিধা আছে। বোনরিকিতে একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং বাইরিকিতে জাতীয় সরকারের প্রধান কার্যালয় অবস্থিত। এছাড়া বাইরিকিতে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি শাখা অবস্থিত, যা ১৯৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বেতিওতে হালকা শিল্পকারখানা আছে। এখান থেকে কোপরা (নারকেলের শুকানো শাঁস) ও শুক্তিপুট (ঝিনুকের খোলার ভেতরের রঙধনু বর্ণের চকচকে উপাদান) রপ্তানি করা হয়। ১৯৪৩ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে দ্বীপটিতে মার্কিন মেরিন বাহিনী এবং জাপানি দখলকারী বাহিনীর মধ্যে তীব্র যুদ্ধ সংঘটিত হয়, যার নাম তারাওয়ার যুদ্ধ। মার্কিনীরা দ্বীপটি দখলে নিতে সক্ষম হয়। যুদ্ধের পরে তারাওয়াকে ব্রিটিশ শাসনাধীন গিলবার্ট ও এলিস দ্বীপপুঞ্জের রাজধানী বানানো হয়। ১৯৭৯ সালে কিরিবাস দ্বীপরাষ্ট্র স্বাধীনতা লাভ করলে এটি রাষ্ট্রটির রাজধানীতে পরিণত হয়। দক্ষিণ তারাওয়া গোটা প্রশান্ত মহাসাগরের সবচেয়ে জনঘনত্ববিশিষ্ট এলাকাগুলির একটি। তারাওয়ার মোট আয়তন ৩১ বর্গকিলোমিটার এবং এখানে প্রায় ৫৬ হাজার লোকের বাস, যা কিরিবাসের মোট জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক।

তেমাতাগি

তেমাতাগি একটি মাঝারি আকারের প্রবালদ্বীপ। এর কাছাকাছি আরো কয়েকটি বড় আকারের প্রবালদ্বীপ রয়েছে।

৮ বর্গকিলোমিটার (৩.১ বর্গমাইল) জায়গাজুড়ে থাকা ১১.৫ কিলোমিটার (৭.১ মাইল) দৈর্ঘ্য ও ৭ কিলোমিটার (৪.৩ মাইল) প্রশস্ত এই দ্বীপটিতে মাত্র ৫৮ জন স্থায়ী বাসিন্দা রয়েছে।

দিয়েগো গার্সিয়া

দিয়েগো গার্সিয়া (ইংরেজি ভাষায়: Diego Garcia) একটি ক্রান্তীয়, পদাঙ্ক-আকৃতির প্রবাল প্রবালপ্রাচীর অবস্থিত দক্ষিণ কেন্দ্রীয় ভারত মহাসাগর মধ্যে বিষুবরেখা। এটি ব্রিটিশ ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চল (বিআইওটি) এর অংশ।

উপহ্রদপরিবেষ্টক বলয়াকার প্রবালদ্বীপ প্রায় ১,৮০০ নটিক্যাল মাইল (৩,৩০০ কিমি) পূর্ব, ১,২০০ নটিক্যাল মাইল ভারত এবং ৩.৪৬৭ নটিক্যাল মাইল (৬,৪০০ কিমি) ডারউইন, অস্ট্রেলিয়া পশ্চিমে দক্ষিণ ডগা এর (২,২০০ কি.মি.) দক্ষিণ আফ্রিকা উপকূল। দিয়েগো গার্সিয়া শাগোস-লক্ষদ্বীপ কেদার এর সর্বদক্ষিণস্থ ডগা কোনোরকম একটি সুবিশাল ভারত মহাসাগর মধ্যে সমুদ্রগর্ভস্থ পরিসীমা প্রবাল রেফস, প্রবালপ্রাচীর, এবং লক্ষদ্বীপ গঠিত, মালদ্বীপ দীর্ঘ শৃঙ্খল, এবং শাগোস দ্বীপমালা দ্বারা topped, যা দিয়েগো গার্সিয়া ভৌগলিকভাবে হয় অবস্থিত। স্থানীয় সময় ইউটিসি অনুসারে সময় +০৬:০০ বছর বহুতরফা (ডিএস্টি কোন পরিবর্তন)।

মার্কিন নৌবাহিনী একটি বৃহৎ জাহাজী জাহাজ এবং সমুদ্রগর্ভস্থ সমর্থন বেস, সামরিক বায়ু বেস, যোগাযোগের এবং স্থান ট্র্যাকিং সুবিধা, এবং প্রাক অবস্থিত সামরিক উপহ্রদ মধ্যে Sealift কমান্ড জাহাজ জাহাজের উপরে আঞ্চলিক অস্ত্রোপচারের জন্য সামরিক সরবরাহের জন্য একটি ভরসাস্থল পরিচালনা করে।মরিশাস থেকে সার্বভৌমত্ব, শাগোস দ্বীপমালা উপর মাত্র ১৯৬৮ সালে স্বাধীনতার আগে হারিয়ে, পুনরূদ্ধার করা চাওয়া। এর জনসংখ্যা পূর্বে চল্লিশ বৎসর পরে, কিছু ২,০০০ জন সংখ্যায়ন, ব্রিটিশ সরকার দ্বারা মরিশাস ও সিসিলি থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একটি দ্বীপে সামরিক বেস স্থাপন অনুমতি নিষ্কাশিত হয়। আজ এখনো নির্বাসিত Chagossians ফিরে তাদের স্বদেশ থেকে যেতে হয় যুদ্ধ, দাবি করেন যে জোরপূর্বক নির্বাসন এবং আহরণ (দিয়েগো গার্সিয়া এর জনশূন্যতা দেখুন) ছিল অবৈধ।

নানচিল কোরাল

নানচিল কোরাল (বৈজ্ঞানিক নাম: Megalops cyprinoides) (ইংরেজি Indo-Pacific tarpon) হচ্ছে Megalopidae পরিবারের Megalops গণের একটি স্বাদুপানির মাছ।

পানি শোধন

পানি শোধন হচ্ছে এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট ব্যবহার শেষে পানিকে আরো গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য এটির গুণমানকে আরো উন্নত করা হয়। অন্তিম ব্যবহারের মধ্যে সম্ভবত পানি পান, শিল্পে পানি সরবরাহ, সেচ, নদী প্রবাহ রক্ষণাবেক্ষণ, পানিতে বিনোদন বা অন্যান্য অনেক ব্যবহার, যেমন- পানি নিরাপদে পরিবেশে ফিরে আসা সহ আরো অনেক ক্ষেত্রে ব্যবহার হতে পারে। পানি শোধন দূষণকারী এবং অবাঞ্ছিত উপাদানগুলি সরিয়ে দেয়, বা তাদের ঘনত্ব হ্রাস করে যাতে পানি তার পছন্দসই অন্তিম ব্যবহারের জন্য উপযুক্ত হয়ে ওঠে।

ফারকুহার পুঞ্জ

ফারকুহার পুঞ্জ টি সেইচেলেস এর আউটার দ্বীপপুঞ্জ এর অন্তর্ভুক্ত, যা আইসল্যান্ড জাতির দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত, রাজধানী ভিক্টোরিয়া ৭০০ কিলোমিটারের বেশি দূরে মাহে দ্বীপে। পুঞ্জটির সকল দ্বীপের সর্বমোট স্থলভাগ হচ্ছে ১১ কিমি² এর কম, কিন্তু মোট উপহ্রদ বেষ্টনকারী বৃত্তাকার প্রবালপ্রাচীরের আকার হচ্ছে প্রায় ৩৭০ কিমি²।

পুঞ্জটি দুটি উপহ্রদ বেষ্টনকারী বৃত্তাকার প্রবালপ্রাচীর এবং একটি পৃথক দ্বীপ এর সমন্বয়ে গঠিত। অধিকন্তু, এই এলাকায় একটি পৃথক জলতলস্থ রীফ রয়েছে:

ফারকুহার প্রবালপ্রাচীর (সাথে দুটি বড় এবং প্রায় আটটি ছোট ইসলেট)

প্রোভিডেন্স প্রবালপ্রাচীর (সাথে ২টি ইসলেট, প্রোভিডেন্স দ্বীপ এবং কার্ফ দ্বীপ)

সেন্ট পিয়েরে দ্বীপ

উইজার্ড রীফ (জলতলস্থিত)মাত্র দুটি সেটলমেন্ট রয়েছে। প্রধান সেটলমেন্টটি ফারকুহার প্রবালপ্রাচীর এর Île du Nord (উত্তর দ্বীপ)-এ, এবং অপরটি প্রোভিডেন্স প্রবালপ্রাচীর এর প্রোভিডেন্স দ্বীপে অবস্থিত।

ফুনাফুতি

ফুনাফুতি পশ্চিম-মধ্য প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত দ্বীপরাষ্ট্র তুভালুকে গঠনকারী নয়টি অ্যাটল বা প্রবালপ্রাচীর দ্বীপের মধ্যে বৃহত্তম দ্বীপ। দ্বীপগুলি অস্ট্রেলিয়া থেকে ৩৪০০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত। ফুনাফুতি অ্যাটলটি ৩০টি খণ্ডদ্বীপ নিয়ে গঠিত। খণ্ডদ্বীপগুলি ২০ মিটার থেকে ৪০০ মিটার প্রশস্ত হতে পারে এবং এদের সর্বমোট আয়তন মাত্র ২.৪ বর্গকিলোমিটার। ফুনাফুতির খণ্ডদ্বীপগুলি একটি উপহ্রদ বা লেগুনকে ঘিরে রেখেছে; লেগুনটির দৈর্ঘ্য ২১.৬ কিলোমিটার এবং প্রস্থ ১৬ কিলোমিটার। লেগুনে জাহাজের নোঙর ফেলার সুব্যবস্থা আছে। মালবাহী জাহাজগুলির এখানে প্রবেশ করতে পারে এবং ফোঙ্গাফালে খণ্ডদ্বীপে বন্দরের সুব্যবস্থা উপভোগ করে। তুভালুতে কেবল ফুনাফুতি দ্বীপেই স্থায়ী জনবসতি রয়েছে। ফুনাফুতি তুভালুর রাজধানী। আরও সঠিক করে বলতে গেলে ফোঙ্গাফালে খণ্ডদ্বীপটি দেশের রাজধানী। ফোঙ্গাফালেতে একটি হোটেল, হাসপাতাল ও আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আছে।

ফুনাফুতির জলবায়ু ক্রান্তীয় অতিবৃষ্টি অরণ্য প্রকৃতির। এখানে প্রতি মাসেই বৃষ্টিপাত হয়। গড় তাপমাত্রা সারা বছর ধরেই ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে থাকে।

১৯৪৩ সালে এখানে মার্কিন নৌবাহিনীর একটি ঘাঁটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।

ফুনাফুতিতে প্রায় ৬ হাজার লোকের বাস, যা তুভালুর মোট জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি। স্থানীয় অধিবাসীরা পলিনেশীয় জাতির লোক। তারা সম্ভবত সামোয়া থেকে এসেছিল। ফুনাফুতির লোকেরা মূলত কৃষিজীবী। তারা তারো, কলা ও আখের চাষ করে। এখানকার মাটি বেলে ধরনের ও অনুর্বর। তা সত্ত্বেও এখানে উৎপাদিত কোপরা (শুকানো নারিকেল শাঁস) রপ্তানি করা হয়।

বড়শিনাক সামুদ্রিক সাপ

বড়শিনাক সামুদ্রিক সাপ বা হুগলী পটী বা বড়শিনাক দজ্যা সাপ (ইংরেজি: beaked sea snake, hook-nosed sea snake, common sea snake, বা Valakadyn sea snake) বৈজ্ঞানিক নাম: Enhydrina schistosa) হচ্ছে হাইড্রফিডি পরিবারভুক্ত এক প্রকার তীব্র বিষধর সাপ সামুদ্রিক সাপ। সাপের কামড়ে আক্রান্তদের ভেতরে ৫০ শতাংশের বেশি সামুদ্রিক সাপের কারণে এবং অধিকাংশই এই প্রজাতির কারণে ঘটে থাকে।

বোরা বোরা দ্বীপপুঞ্জ

বোরা বোরা ১২ বর্গ মাইল আয়তনের একটি দ্বীপপুঞ্জ, যা ফরাসি পলিনেশিয়ার পশ্চিমে অবস্থিত। ফরাসি পলিনেশিয়ার রাজধানী পপেইট থেকে প্রায় ২৩০ কিলোমিটার (১৪৩ মাইল) উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত, একটি উপহ্রদ এবং একটি প্রাচীরের প্রস্থ দ্বারা ঘেরা। দ্বীপের মাঝখানে দুটি মৃত আগ্নেয়গিরি মাউন্ট পেহিয়া এবং মাউন্ট ওটারমমেনু রয়েছে। সর্বোচ্চ চূড়া হচ্ছে যা ৭২৭ মিটার (২৩৮৫ ফুট)।

ভেনিস

ভেনিস (ইতালীয়: Venezia, ভেনিসীয়ান: Venesia) উত্তর-পূর্ব ইতালির ভেনেতো অঞ্চলের একটি প্রধান শহর, যার জনসংখ্যা ২৭১,০০৯ (আদমশুমারি ০৯ সেপ্টেম্বর ২০০৯) জন। এক মিলেনিয়ামের চেয়েও বেশি সময় ধরে এটি ভেনিস প্রজাতন্ত্রের রাজধানী ছিল এবং "প্রশান্ত" অথবা "শাষক" হিসাবে এটি পরিচিত ছিল।

শিগা প্রশাসনিক অঞ্চল

শিগা প্রশাসনিক অঞ্চল (滋賀県? শিগা কেন্‌) হল জাপানের মূল দ্বীপ হোনশুর কান্‌সাই অঞ্চলের অন্তর্গত একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। এর রাজধানী ওওৎসু নগর। জাপানের বৃহত্তম মিষ্টি জলের হ্রদ বিওয়া এই প্রশাসনিক অঞ্চলের কেন্দ্রে অবস্থিত।

অন্যান্য ভাষাসমূহ

This page is based on a Wikipedia article written by authors (here).
Text is available under the CC BY-SA 3.0 license; additional terms may apply.
Images, videos and audio are available under their respective licenses.